বরিশাল জেলার সংবাদ

বানারীপাড়ায় স্কুল মাঠ দখল করে নব্য আওয়ামী লীগ নেতার বালুর ব্যবসা

মো. সুজন মোল্লা,বানারীপাড়া : প্রিয় বিদ্যালয়ের মাঠ দখল করে বালুর ব্যবসা করছেন আওয়ামী লীগে যোগদান করা একজন নেতা। এমনই অভিযোগ করেছেন স্থানীয় শিক্ষার্থী ও কিশোর-যুবকরা এবং অনেক স্থানীয়রা। তারা জানান জানান ১৯৯১ সালে বিএনপি-জামায়াত ক্ষমতায় আসার পরে তিনি বিএনপি নেতা বনে গিয়ে এলাকায় প্রভাব বিস্তার করতে থাকেন। ওই সময় আওয়ামী লীগের নেতা ও কর্মীদের হয়রানীও করা হয় তার নেতৃত্বে। তবে ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করলে তিনি হয়ে যান আওয়ামী লীগ নেতা। সেই সময়েও তিনি স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা ও কর্মীদের হয়রানী করেছেন বলেও অভিযোগ রয়েছে। পুনরায় ২০০১ সালে বিএনপি-জামায়াত রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় আসলে তিনি আবার দল পাল্টে হয়ে যান বিএনপি নেতা। পদ পেয়ে হয়ে যান ইউনিয়ন বিএনপির সহ-সভাপতি।

সেই থেকে বিএনপির প্রভাবশালী নেতা বনে গিয়ে হয়ে যান ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ানম্যান। পরে আওয়ামী লীগের ওপরে তার নেতৃত্বে চলে দমন-পিড়ন। এখানেই শেষ নয় ২০০৮ সালে আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করলে আবারও তিনি যোগদান করেন আওয়ামী লীগে। সেই থেকে স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতা, কর্মী ও সমর্থকদের এমনকি স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের বিভিন্নভাবে হয়রানী করছেন বলে একাধিক অভিযোগ পাওয়া যায় তার বিরুদ্ধে। সরেজমিনে জানাগেছে তিনি ছাড়া তার পরিবারের আর কোন সদস্য আওয়ামী লীগের রাজনীতি করছেন না। জানাগেছে তার এক ভাইয়ের ছেলে বরিশাল জেলা ছাত্রদলের নেতা আরেক ভাইয়ের ছেলে বানারীপাড়া উপজেলা ছাত্রদলের যুগ্ম-আহবায়ক। অভিযোগ রয়েছে এদেরকে সাথে নিয়েই সম্প্রতি তিনি স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতা ও কর্মীদের ওপরে চড়াও হয়েছিলেন।

উপরোক্ত বিবারণ গুলো বরিশালের বানারীপাড়া উপজেলার সৈয়দকাঠি ইউনিয়নের একজন সাবেক চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন মৃধার বিরুদ্ধে। ওই ইউনিয়নের এসইএসডিপি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠ অবৈধভাবে দখল করে বালুর ব্যবসা করার অভিযোগ পাওয়া গেছে তার বিরুদ্ধে। এদিকে এ বিষয়ে ২০ মে বৃহস্পতিবার সকালে সৈয়দকাঠি এসইএসডিপি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মিলন কান্ত সরকার এ ব্যপারে বানারীপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রিপন কুমার সাহার কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন।

এছাড়াও উপজেলা চেয়ারম্যান, উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) ও উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তার কাছেও এ অভিযোগের অনুলিপি দেওয়া হয়েছে।  জানা গেছে, উপজেলার সৈয়দকাঠির সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ও সাবেক বিএনপি নেতা আনোয়ার হোসেন মৃধা দীর্ঘদিন ধরে স্থানীয় এসইএসডিপি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠের একাংশ দখল করে বালুর ব্যবসা করে আসছেন। দেশে করোনা সংক্রমণ শুরু হওয়ার আগে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা থাকার সময় বাতাসে বালু উড়ে ওই বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও শিক্ষকদের জনস্বাস্থ্য হুমকির মধ্যে ফেলে ছিলেন তিনি।

ওই সময়ে মাঠ থেকে বালু সড়ানোর জন্য স্কুলের শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা বারবার বললেও দল পাল্টানো আওয়ামী লীগ নেতা আনোয়ার হোসেন মৃধা তাদের আহবানে কোন প্রকার কর্ণপাত না করেই স্কুল মাঠে বীরদর্পে বালুর ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছেন। বিএনপি ছেড়ে আওয়ামী লীগে যোগদান করা প্রভাবশালী সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন মৃধার বিরুদ্ধে ওই স্কুল সংলগ্ন সন্ধ্যা নদীর শাখা কঁচা নদীর তীরের সরকারি খাস সম্পত্তি দখল করে রাইস মিল নির্মাণসহ ইট, বিভিন্ন ধরণের বালু, খোয়া ও ধান-চালের (কুটিয়ালী) ব্যবসা করারও অভিযোগ রয়েছে।
সৈয়দকাঠি এসইএসডিপি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মিলন কান্ত সরকার বলেন সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন মৃধা  দীর্ঘদিন ধরে স্কুলের মাঠের একাংশ দখল করে বালুর ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছেন। বার বার  অনুরোধ করার পরেও তিনি মাঠ পরিস্কার করে দেননি। স্কুল খোলার পরে বালু উড়ে শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও শিক্ষকদের স্বাস্থ্যের জন্য মারাত্মক ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়াবে। এছাড়া বাতাসে বালু উড়ে পথচারী, স্কুল সংলগ্ন বসতবাড়ি ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানসহ জনসাধারণের চলাচলে চরম ভোগান্তি হচ্ছে।
এ বিষয়ে সৈয়দকাঠির সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন মৃধা বলেন, সরকারি ভাবে পাওয়া ভূমিহীনদের সম্পত্তি তিনি ক্রয় করে সেখানে বালুসহ বিভিন্ন ব্যবসা করছেন এবং সেই সম্পত্তির কিছু অংশ ওই স্কুলেও দান করেছেন। এ প্রসঙ্গে বানারীপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রিপন কুমার সাহা বলেন তদন্তপূর্ব প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

Back to top button