প্রধান সংবাদবরিশাল জেলার সংবাদ

ববি ছাত্রীসহ ৪ শিক্ষার্থীকে নির্যাতন

স্টাফ রিপোর্টার : বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (ববি) ২ ছাত্রী সহ ৪ জন শিক্ষার্থীকে জোরপূর্বক তুলে নিয়ে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে বহিরাগত কয়েকজন যুবকের বিরুদ্ধে। বুধবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে এই ঘটনা ঘটে।
এ ঘটনা সঙ্গে জড়িতরা হলেন, রাহিম মাহমুদ, আবীর, লিমন এবং অজ্ঞাতনামা কয়েকজন। তারা ঝালকাঠি সরকারি কলেজের শিক্ষার্থী বলে জানিয়েছেন বরিশাল কোতয়ালী মডেল থানার এসআই মাহমুদুল মুনিম।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বুধবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে দেশব্যাপী ধর্ষণের প্রতিবাদে আলোক মিছিল করে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীরা। এ সময় এক যুবক মোটরসাইকেল নিয়ে আলোক মিছিলে ঢুকে পড়ে। এ নিয়ে কিছুটা তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়।
মিছিল শেষে অটোরিকশায় বরিশাল নগরীর বাসায় ফিরছিলেন শিক্ষার্থীরা। এ সময় মোটরসাইকেল আরোহী ৭ যুবক দপদপিয়া সেতুতে তাদের গতিরোধ করে। পরে তারা তাদের নগরীর রূপাতলী হাউজিংয়ের ৮নম্বর সড়কে নিয়ে আটকে রাখেন।
ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীরা জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ে ধর্ষণবিরোধী প্রদীপ মিছিলে ঢুকে পড়ে এক মোটরসাইকেল আরোহী। এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের গণিত বিভাগের শিক্ষার্থী হাসিবুর রহমান হাসিব আঘাত পায়। এ সময় মোটরসাইকেল আরোহী ও তার সাথে থাকা একজনকে ক্যাম্পাসের দায়িত্বরত পুলিশ আটক করে। প্রদীপ মিছিল শেষ হওয়ার পর শিক্ষার্থীরা ক্যাম্পাসের সামনে গেলে ক্যাম্পাস ফাঁড়ির দায়িত্বরত পুলিশ দুই পক্ষকে নিয়ে আলোচনা করে তাদের ছেড়ে দেয়।
পরে বাসায় ফেরার পথে তাদেরর অপহরণ করে রূপাতলী নিয়ে আটকে রাখে। প্রায় আধা ঘণ্টা আটকে রাখার সময় তারা দুই ছাত্রীকে অশøীল ভাষায় গালাগাল এবং ২ ছাত্রকে শারীরিকভাবে নির্যাতন করে। ঘটনাস্থলে উপস্থিত কোতয়ালী মডেল থানার এসআই মাহমুদুল মুনিম জানান, শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে লিখিত অভিযোগ না থাকায় অভিযুক্তকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। এ ঘটনায় লিখিত অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেবে পুলিশ।
বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. ছাদেকুল আরেফিন জানান, তিনি পুরো ঘটনা সম্পর্কে অবহিত হয়েছেন। এ ঘটনায় প্রক্টরের মাধ্যমে খোঁজ খবর নিয়ে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ###

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

আরও দেখুন...
Close
Back to top button