বরিশাল বিভাগের সংবাদ

বাউফলে ভূঁয়া ভাউচার দিয়ে টাকা আত্মসাৎ

বাউফলে ভূঁয়া ভাউচার দিয়ে টাকা আত্মসাৎ

অতুল পাল,বোউফল : বাউফলের পরিবার পরিকল্পণা বিভাগের  দু’টি ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আসবাবপত্রের রং ও মেরামত না করেই বরাদ্দের  টাকা  আত্মসাৎ করেছেন  উপজেলা পরিবার পরিকল্পণা বিভাগের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা। বিষয়টি ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখার জন্য সাংবাদিকদের অনুরোধ করেছেন ওই কর্মকর্তা।
জানা গেছে, ২০১৯-২০ অর্থবছরে উপজেলার কাছিপাড়া ও ধুলিয়া ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চেয়ার টেবিলের রং ও মেরামতের জন্য উপজেলা পরিবার পরিকল্পণা  কার্যালয় থেকে প্রতিটির অনুকুলে ১০ হাজার করে মোট ২০ হাজার টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়। অনুসন্ধান করে দেখা গেছে, ওই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স দু’টির কোন আসবাবপত্রেরই  কোন রং বা মেরামত করা হয়নি অথচ ওই বরাদ্দের টাকা উত্তোলন করা হয়েছে। স্মার্ট  ফার্নিচার মাট ও  ফরহাদ ফার্নিচার মাট নামের দু’টি প্রতিষ্ঠানের ভাউচার দিয়ে টাকা উত্তোলন করা হয়েছে অথচ এরকম কোন প্রতিষ্ঠানই বাউফলে নেই।
 ভাউচার পর্যালোচনা করে দেখা গেছে, নকল ওই ভাউচারে একই ব্যক্তির হাতের লেখায় দু’টি ভিন্ন প্রতিষ্ঠানের বিল বুঝে পাওয়া হয়েছে এমনটি লেখা রয়েছে। জানা যায়, পরিবার পরিকল্পণা কর্মকর্তা ( ভারপ্রাপ্ত) ডা. মো.জাকির হোসেন নিজেই ওই বিলের টাকা আত্মসাৎ করেছেন। ফিরোজ খান নামের অফিস সসহকারি এ কাজে সহযোগিতা করেছেন। কাজ না করে টাকা আত্মসাতের বিষয়ে জানতে চাইলে উপজেলা পরিবার পরিকল্পণা কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) ডা: মো.জাকির হোসেন বলেন, অনিচ্ছাকৃত ভুল হয়ে গেছে। তবে টাকা মিস-ইউস হয়নি। এসময় তিনি তাকে বাউফলের সন্তান দাবি করে বিষয়টি ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখার অনুরোধ করেন।

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

Back to top button