বরিশাল জেলার সংবাদ

উদ্বোধনের আগেই বেহাল বরিশাল শিল্পকলা একাডেমি

স্টাফ রিপোর্টার : উদ্বোধনের আগেই বেহাল অবস্থা বরিশাল শিল্পকলা একাডেমির অডিটোরিয়াম ভবন। ২০১৫ সালে তৎকালীন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর বরিশাল জেলা শিল্পকলা একাডেমির নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেন। ২০১৭ সালের জুনে এর নির্মাণ কাজ শেষ করার কথা থাকলেও ইতোমধ্যে ৫ বছর পেরিয়ে গেলেও নির্মাণ কাজ এখনও শেষ হয়নি। উল্টো নানা জটিলতায় নির্মাণ কাজও বন্ধ রেখেছে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান। তবে নির্মাণ কাজ শেষ হওয়ার আগেই ভেঙে পড়েছে ভবনের অডিটোরিয়ামের সিলিং। এটি জানাজানি হওয়ার পর দ্রুত তা মেরামত করার কাজ চলছে। বরিশাল সাংস্কৃতিক সংগঠন সমন্বয় পরিষদ এর সভাপতি কাজল ঘোষ জানান, আজ রবিবার বেলা ১১টায় অশ্বিনী কুমার হলের সামনে বরিশাল বিভাগীয় ও জেলা শিল্পকলা একাডেমী অবিলম্বে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তরের দাবীতে মানববন্ধন শেষে বরিশাল জেলা প্রশাসক বরাবার স্মারকলিপি প্রদান করবে।
শনিবার সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, অডিটোরিয়ামের সিলিং ডেমেজ হয়ে ভেঙে পরেছে। পুনরায় সিলিং খুলে আবার নতুন করে সিলিং লাগানোর কাজ চলছে।
ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ইনফিনিটি ইঞ্জিনিয়ারিং লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক খোরশেদ আলম সাংবাদিকদের জানান, করোনা মহামারীর কারণে কিছু কাজের সমস্যা হয়েছে। এছাড়া প্রকল্পের বাইরে সাজসজ্জাসহ কিছু বাড়তি কাজ করার জন্য বিলম্বিত হচ্ছে। ভেঙে যাওয়া সিলিং খুলে নতুন করে মেরামত করে দেয়া হচ্ছে।
শনিবার কর্মরত নির্মাণ শ্রমিকরা সাংবাদিকদের জানান, ৫ জানুয়ারি নির্মাণ কাজ শেষ করে সবাই যে যার মত করে চলে যাই। পরবর্তীতে করোনার কারনে আর আসা হয়নি। করোনার সময় পুরো অডিটোরিয়াম বন্ধ থাকার করনে ভিতরে গ্যাস সৃষ্টি হয়ে সিলিং ভেঙে পরেছে। ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান আমাদের পুনরায় সিলিং লাগানোর জন্য বলেছে। আমরা আবার নতুন করে সিলিং লাগানোর কাজ করছি।
জানা গেছে, ২০১৭ সারের জুনে হস্তান্তর করার কথা ছিল। কিন্তু দফায় দফায় কাজের মেয়াদ বৃদ্ধি করা হয়। বা কি কাজ দ্রুত শেষ করার আশ্বাসে ২০১৮ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিভাগের অন্যান্য উন্নয়নমূলক কাজের সঙ্গে এই শিল্পকলা একাডেমি ভবন ও অডিটোরিয়াম উদ্বোধন করেন। পরে নির্মাণ কাজে ধীরগতি ও স্থানীয় সংস্কৃতিকর্মীদের আমন্ত্রণে ২০১৯ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারির মধ্যে এটি হস্তান্তর করতে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানকে নির্দেশ দেন প্রকল্প কর্মকর্তা। এরই মধ্যে নির্মাণ চলাকালে অডিটোরিয়ামের ডেকোরেশনের সিলিং ভেঙে পড়া ও কাজের ধীরগতিতে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা-কর্মচারী ও সংস্কৃতিকর্মীদের মধ্যে ব্যাপক ক্ষোভ বিরাজ করছে।
বরিশাল জেলা প্রশাসক এস, এম, অজিয়র রহমান সাংবাদিকদের জানান, কিছু কাজ বাকি রয়েছে। এগুলো দ্রুত শেষ করার জন্য বারবার সংশ্লিষ্ট ঠিকাদার ও পিডি ও পিডব্লিউডিকে তাগিদ দেয়া হচ্ছে। সিলিং ভেঙে পড়ার বিষয়টি আমার জানা আছে। তবে এখনও আমরা কাজ বুঝে নেইনি, যার কারণে কোনো ব্যবস্থা নেয়া যায়নি।

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

Back to top button