রাজনীতির সংবাদ

ভাগ্নে ও ভাতিজার সাথে লড়ছেন কাউন্সিলর পান্না মাঝি

কুয়াকাটা পৌর নির্বাচন

এ এম মিজানুর রহমান বুলেট, কলাপাড়া : সারগকন্যা খ্যাত পর্যটন কেন্দ্র কুয়াকাটার আয়তন ৮.১১ র্বগকিলোমিটার। ১৫ হাজার ৩শ’২৬ জন লোকসংখ্যায় ভোটার ৮ হাজার ১শ’ ২২ জন। পৌরসভা গঠনের পর দ্বিতীয় বারের নির্বাচনে ভোট হবে ২৮ ডিসেম্বর। পৌরসভার মোট ৯ টি ওয়ার্ডে ৩৩ জন সাধারন কাউন্সিলর প্রার্থী রয়েছে।

এরমধ্যে ৬নং ওয়ার্ডে ১ হাজার ৫ জন ভোটারের বিপরীতে পাঁচজন কাউন্সিলর প্রার্থী মাঠে লড়ছেন। এ ওয়ার্ডে বর্তমান কাউন্সিলর পান্না মাঝি ডলিম প্রতীক নিয়ে লড়ছেন আপন ভাগ্নে যুবলীগ নেতা মো.বশির আহম্মেদ টেবিল ল্যাপ প্রতীকের সাথে।

একই ওয়ার্ডে উট পাখি প্রতীক নিয়ে মাঠে রয়েছে পান্না মাঝির খালাতে ভাইয়ের ছেলে কুয়াকাটা পৌর ছাত্রলীগ সভাপতি মজিবুর রহমান। এছাড়া পনির বোতল প্রাতীকে ইসমাইল এবং পাঞ্জাবী প্রতীকে ইকবাল খান প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনী মাঠে রয়েছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, এ পৌর নির্বাচনকে সামনে রেখে কোন প্রার্থী বসে নেই। জয়ের আশায় তারা ভোটারদের দ্বারে দ্বারে গিয়ে ভোট প্রার্থনা করছে। তবে কে হবে এ ওয়ার্ডে কাউন্সিলর মামা, ভাগ্নে না ভাতিজা এ নিয়ে হিসাব কষছেন সাধারণ ভোটাররা। তবে অনেক নিরপেক্ষ ভোটাররা নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানিয়েছেন,ওই তিনজন নিকট আত্মীয় কাউন্সিলর প্রার্থীর পারিবারিক ও দলীয় ভোট ভাগাভাগির ইতিবাচক প্রভাব পড়তে অপর দুই প্রার্থীর ওপর।

তবে আগামী ২৮ তারিখের নির্বাচনে ওই এলাকার সাধারণ ভোটাররা নির্ধারণ করবেন ওই জনপদের কে হবে জনপ্রতিনিধি এমনটাই জানিয়েছেন সুশিল সমাজের নেতৃবৃন্দ। এদিকে পৌর নির্বাচনকে ঘিরে সমগ্র পৌর এলাকা এখন উৎসব মুখর পরিবেশ বিরাজ করছে।

টেবিল ল্যাপ প্রতীকে কাউন্সিলর প্রার্থী স্থানীয় যুবলীগ নেতা মো. বশির আহম্মেদ বলেন,তার মামা এর আগে কাউন্সিলর ছিল। এমনকি তিনি প্যানেল মেয়র ছিলেন। এলাকা কি উন্নয়ন করেছে তা এলাকা মানুষই ভাল বলতে পারবেন। আশা করছি চলতি নির্বাচনে জনগন আমাকে ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করবে। আমি সব সময় জনগনের পাশেই ছিলাম এবং থাকবো।

কুয়াকাটা পৌর ছাত্রলীগ সভাপতি উট পাখি প্রতীক নিয়ে কাউন্সিলর প্রার্থী মজিবুর রহমান বলেন, জনগনের সুখ দু:খে বিগত দিন গুলোতে পাশেই ছিলাম। তাই জনগন আমাকেই ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করবে।

কাউন্সিলর পান্না মাঝি বলেন, পৌরসভা গঠনের পর থেকে অদ্য কাউন্সিল হিসেবে নিযুক্ত আছি। সরকারের সকল বরাদ্ধ জনগনের মাঝে সমহারে বন্টন করেছি। ৬নং ওয়ার্ডের জনগনের পাশে ছিলাম, তাই পূর্বের মতো চলতি নির্বাচনে জনগনের সমর্থন আমার পক্ষে রয়েছে।

কলাপাড়া উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও কুয়াকাটা পৌর নির্বাচনের সহকারি রিটার্নিং অফিসার আব্দুর রশীদ বলেন, কুয়াকাটা পৌরসভা নির্বাচনে ২৮ ডিসেম্বর ভোট গ্রহন অনুষ্ঠিত হবে। এতে মেয়র পদে ৪ জন প্রার্থী, সংরক্ষিত কাউন্সিল পদে ৮ জন প্রার্থী এবং সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৩৩ জন প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদদ্বীতা করছে।

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

Back to top button