বরিশাল বিভাগের সংবাদ

কলাপাড়ায় ছাত্রলীগ নেতার দুই হাতের রগ কর্তন

কলাপাড়া প্রতিনিধি : পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে বৃহস্পতিবার দুপুর দেড়টার দিকে চৌরাস্তা বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন এলাকায় একদল সন্ত্রাসী ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি মো. কামরুল হাসান গাজী (৩০) দুই হাতের কব্জি বরাবর রগ কেটে দেয়া হয়েছে।

আশংকা জনক অবস্থায় তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তির পর কর্তব্যরত চিকিৎসক বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করেন।

কামরুল হাসান গাজী চাকামইয়া ইউনিয়নের পূর্ব চাকামইয়া গ্রামের আবদুল খালেক গাজীর ছেলে এবং ছাত্রলীগ চাকামইয়া ইউনিয়ন শাখার সাবেক সহ-সভাপতি। এ ঘটনায় আহত কামরুল হাসান গাজী টিয়াখালী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. মশিউর রহমান শিমু মীরা কে দায়ী করেছেন।

চাকামইয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. হুমায়ুন কবির কেরামত জানান, পূর্ব শত্রুতার জেরে চেয়ারম্যান মশিউর রহমান শিমু মীরার নেতৃত্বে এ ঘটনা ঘটানো হয়েছে। কলাপাড়া থানার পুলিশ উপ-পরিদর্শক মো. জহিরুল ইসলাম জানান, ভিকটিমের দেয়া তথ্য অনুযায়ী চেয়ারম্যান মশিউর রহমান শিমু মীরার নেতৃত্বে আবির, জহিরুল ও জনি এ ঘটনা ঘটিয়েছে ।

এ ব্যাপারে টিয়াখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. মশিউর রহমান শিমু’র সাথে তার মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি।
ছাত্র লীগের সাধারণ সম্পাদক ফয়জুর রহমান আশিক তালুকদার জানান দুই গ্রুপের কোন্দলের কারণে এ ঘটনা ঘটেছে।

তবে কলাপাড়া থানার ওসি (তদন্ত) মো.আসাদুর রহমান জানান, মূলতঃ চাকামইয়া এবং টিয়াখালী ইউনিয়ন চেয়ারম্যানের অভ্যন্তরীর দ্বন্দের কারনে এ ঘটনা ঘটেছে বলে তিনি উল্লেখ করেন ।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত এ ঘটনায় পুলিশ কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি। থানায় মামলা দায়ের প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। এঘটনায় এখনো পর্যন্ত কাউকে আটক করতে না পারলেও বাসস্ট্যান্ড এলাকায় একটি বাসায় অভিযান চালিয়ে দুইটি দেশীয় অস্ত্র (চল) উদ্ধার করেছে পুলিশ। আহতের স্বজনদের সুত্র জানায় এ ঘটনায় কলাপাড়া থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

কলাপাড়া থানার ওসি খন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান জানান, খবর পাওয়া মাত্রই ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। অপরাধীদের দ্রুত গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

Back to top button