প্রধান সংবাদবরিশাল জেলার সংবাদ

প্রতারণার দায়ে ৭ রোগীর দালালের কারাদন্ড

স্টাফ রিপোর্টার : বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা সহজ-সরল রোগীদের ফুসলিয়ে নাম সর্বস্ব হাসপাতাল-ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারে নিয়ে প্রতারণার দায়ে ৭ রোগীর দালালকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আলী সুজার নেতৃত্বাধীন ভ্রাম্যমাণ আদালত সোমবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে এই দন্ডাদেশ দেন।
দন্ডপ্রাপ্তদের মধ্যে মো. সালউদ্দিন নাদিম (৪০), তানজিলা আক্তার (১৮), আসমা বেগম (৩২), মনিরুল ইসলাম (৩০) ও মো. বাবুলকে (৪০) ১ মাস করে এবং জহিরুল হক খান (৩০) ও সোনিয়া আক্তারকে (২৪) ৭ দিন করে বিনাশ্রম কারাদন্ড দেয়া হয়েছে। দন্ড ঘোষনার পরপরই তাদের বরিশাল কেন্দ্রিয় কারাগারে প্রেরন করা হয়েছে।
নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আলী সুজা জানান, দন্ডপ্রাপ্তরা সরকারী স্বাস্থ্য সেবা প্রতিষ্ঠান শের-ই বাংলা মেডিকেলে ডাক্তার দেখাতে আসা গ্রামাঞ্চলের সহজ-সরল রোগীদের ভুল বুঝিয়ে মানহীন বেসরকারী ক্লিনিক-হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারে নিয়ে যায়। সেখানে চিকিৎসা ও পরীক্ষা-নিরীক্ষার নামে তাদের অর্থ হাতিয়ে নেয় তারা। এর ফলে তারা সু-চিকিৎসা থেকে বঞ্চিত হয় এবং আর্থিকভাবে নিঃস্ব হয়ে পড়ে। দির্ঘদিন ধরে চলে আসছে এই প্রতারনা। গোয়েন্দা পুলিশের সহায়তায় সকালে শেবাচিম হাসপাতালে অভিযান চালিয়ে ৭ জন রোগীর দালাল আটক করেন তারা। পরে ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে অপরাধ বিবেচনায় তাদের মধ্যে ৫ জনকে ১ মাস করে এবং অপর ২জনকে ৭ দিন করে বিনাশ্রম কারাদন্ড দেয়া হয়। জনস্বার্থে এই অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানান নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আলী সুজা।
এদিকে রোগীর দালাল আটক করায় বরিশালের দালাল নির্ভর নাম সর্বস্ব ক্লিনিক-ডায়াগনস্টিক মালিকদের দৌড়ঝাপ দেখা গেছে। দন্ড ঘোষনার আগে দালালদের ছাড়াতে বিভিন্নভাবে তদবির করে তারা। তবে প্রশাসনের কঠোরতায় শেষ রক্ষা হয়নি দালালদের। রোগীদের সাথে প্রতারণা করায় তাদের ঠাই হলো কারাগারে।

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

Back to top button