বরিশাল জেলার সংবাদ

পুলিশ হেফাজতে মৃত্যু, বিচার বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক : বরিশালে পুলিশের নির্যাতনে শিক্ষানবিশ আইনজীবী রেজাউল করিম রেজা মৃত্যুর অভিযোগ বিচার বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। আজ বুধবার হাইকোর্টের বিচারপতি এম এনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের দ্বৈত বেঞ্চ এই আদেশ দেন। আদেশে বরিশাল চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেটকে অভিযোগ তদন্তের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

এর আগে রেজাউল করিম রেজাকে নির্যাতন করে হত্যার অভিযোগে মেট্রোপলিটন পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগের তৎকালীন উপ-পরিদর্শক মো. মহিউদ্দিন এবং অজ্ঞাতনামা দুই পুলিশ কনস্টেবলকে আসামি করে গত ৫ জানুয়ারি বরিশাল মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন তার বাবা ইউনুস মুন্সি।
ওইদিন আদালতের বিচারক মো. আনিছুর রহমান শিক্ষানবিস আইনজীবী রেজা হত্যার অভিযোগ পিবিআই’র পরিদর্শক পদমর্যাদার একজন কর্মকর্তাকে দিয়ে তদন্ত করে ২৩ ফেব্রুয়ারির মধ্যে আদালতে প্রতিবেদন দেয়ার নির্দেশ দেন।

মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের এই আদেশের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে রিট করেন রেজার বাবা ইউনুস মুন্সি। আজ বুধবার হাইকোর্টের একটি দ্বৈত বেঞ্চে ওই রিটের শুনানি হয়। উচ্চাদালতে বাদীর পক্ষে অ্যাডভোকেট শিশির মনির এবং রাষ্ট্রপক্ষে ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল সারোয়ার হোসেন বাপ্পী শুনানি করেন। শুনানি শেষে উচ্চাদালত রেজা হত্যার অভিযোগ তদন্তের জন্য বরিশাল চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেটকে নির্দেশ দেন বলে নিশ্চিত করেছেন রিটকারীর আইনজীবী অ্যাডভোকেট শিশির মনির। তবে উচ্চাদালত এই তদন্তের জন্য কোন সময়সীমা বেঁধে দেননি বলে তিনি জানান।

উল্লেখ্য, গত ২৯ ডিসেম্বর রাত ৮টার দিকে নগরীর সাগরদী হামিদ খান সড়কের একটি চায়ের দোকান থেকে রেজাউল করিমকে আটক করে উপ-পরিদর্শক মো. মহিউদ্দিনের নেতৃত্বাধীন গোয়েন্দা পুলিশের একটি দল। আটকের পর প্রকাশ্যে তাকে নির্যাতন করে গোয়েন্দা পুলিশের গাড়িতে তুলতে দেখেন প্রত্যক্ষদর্শীরা।

এ ঘটনায় রেজার বাবা ইউনুস মুন্সি বাদী হয়ে উপ-পরিদর্শক মহিউদ্দিন সহ ৩ জনকে আসামি করে গত ৫ জানুয়ারি বরিশাল মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন।

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

Back to top button