বরিশাল জেলার সংবাদ

দক্ষিণাঞ্চলে বেড়েছে জ্বরের প্রাদুর্ভাব

করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা

স্টাফ রিপোর্টার : দক্ষিণাঞ্চলের প্রতিটি উপজেলার গ্রামাঞ্চলে গত এক সপ্তাহ থেকে প্রায় ঘরে জ্বরের প্রাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে। এসব পরিবারের সদস্যদের সামান্য করোনা উপসর্গ থাকলেও তারা তা আমলে নিচ্ছেন না। গ্রামের পল্লী চিকিৎসকের কাছ থেকে তারা চিকিৎসা নিচ্ছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, জ্বরে আক্রান্ত ব্যক্তিদের নমুনায় পজেটিভ আসলে তখন পুরো পরিবার নিয়ে আইসোলেশনে থাকতে হবে। এমনকি বাড়িটি লকডাউনও ঘোষণা করতে পারেন সংশ্লিষ্টরা। এতে দৈনন্দিন কাজ-কর্ম নিয়ে বিপাকে পরার ভয়ে অনেকেই নমুনা পরীক্ষায় অনীহা করেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গত এক সপ্তাহ থেকে ঠান্ডাজনিত সর্দি ও জ্বর বরিশালের উপজেলাগুলোর প্রায় প্রতিটি বাড়িতে ছড়িয়ে পরেছে। করোনার উপসর্গ থাকলেও ভয়ে জ্বর কিংবা সর্দিতে আক্রান্ত ব্যক্তিরা নমুনা দিতে আগ্রহ নন। তবে সর্দি-জ্বরে আক্রান্ত ব্যক্তিরা অবাধে ঘুরে বেড়াচ্ছেন পাড়া ও মহল্লার দোকানগুলোতে। ফলে করোনা সংক্রমণের আশঙ্কা বাড়ছে গ্রামগঞ্জের পাড়া ও মহল্লায়।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বরিশাল বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক ডা: শ্যামল কৃষ্ণ মন্ডল জানান, সর্দি-জ্বরে আক্রান্ত হলেই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স অথবা ইউনিয়নে সহকারী সার্জনের স্মরণাপন্ন হতে হবে। সকলকে তিনি স্বাস্থ্য বিভাগের চিকিৎসা সেবা নেয়ার আহবান জানিয়ে বলেন, সর্দি-জ্বরে আক্রান্ত ব্যক্তিদের দ্রুত সময়ে নমুনা পরীক্ষার জন্য প্রতিটি উপজেলা হাসপাতালে এন্টিজেন টেস্ট ব্যবস্থা করা হয়েছে। এ টেস্টের ফলে রোগীকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা দিতে সুবিধে হয়।

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

Back to top button