রাজনীতির সংবাদ

সংবিধান সংশোধন করে ধর্ম ভিত্তিক রাজনীতি চালু করা হয় : মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী

পিরোজপুর অফিস : মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ.ম রেজাউল করিম এমপি বলেছেন, ৭১ সালের স্বাধীনতা যুদ্ধে ইসলাম ধর্মের নাম নিয়ে পাক হানাদার বাহিনী নারীদের সম্ভ্রমহানী করেছে। ঘরবাড়ি পুড়িয়ে দিয়েছে, মুক্তিযোদ্ধাদেরকে হত্যা করেছে। কিন্তু ইসলাম ধর্মে এর কোন স্থান নেই। ধর্ম নিয়ে বারাবারি করে কোন জাতির মঙ্গল হয় নাই। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে মুক্তিযুদ্ধে ৩০ লÿ শহীদ ও ২ লÿ মা বোনের ইজ্জতের বিনিময়ে বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছে। মুসলিম-হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান সবাই বাঙালী। এখানে সাম্প্রদায়িকতার কোন স্থান নাই। যারা সম্প্রীতি বিনষ্ট করার চেষ্টা করবে তাদের চিহ্নিত করে দৃষ্টান্তমূলক শা¯িÍর ব্যবস্থা করা হবে। মন্ত্রী সোমবার জেলা শিল্পকলা একাডেমী মিলনায়তনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শারদ উপহার প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাষ্ট আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে সুরঞ্জিত কুমার লিটুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক আবু আলী মো: সাজ্জাদ হোসেন, পুলিশ সুপার হায়াতুল ইসলাম খান, পুজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি বিমল মন্ডল, সাধারণ সম্পাদক গোপাল বসু প্রমুখ। মন্ত্রী আরো বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যার পরে বাঙালী রাষ্ট্র ব্যবস্থাকে ধ্বংস করে সংবিধান সংশোধন করে ধর্ম ভিত্তিক রাজনীতি চালু করা হয়। যারা স্বাধীনতা যুদ্ধে বিরোধিতা করেছিল সেই রাজাকার আলবদরদের রাজনীতিতে সুযোগ করে দিয়ে তাদেরকে প্রধানমন্ত্রী ও মন্ত্রী করা হয়েছিল।

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

Back to top button