বরিশাল জেলার সংবাদ

লাগমহীনভাবে বেড়েই চলছে এলপি গ্যাসের দাম

স্টাফ রিপোর্টার : বরিশালে লাগমহীনভাবে বেড়েই চলছে এলপি গ্যাসের দাম। বছরের শুরুতেই সিলিন্ডারপ্রতি এক লাফে বেড়েছে ১৫০ টাকা। গ্যাসের দাম বৃদ্ধিতে স্থানীয় ডিস্ট্রিবিউটররা আন্তর্জাতিক বাজারের দোহাই দিয়েছেন। তবে গ্রাহকরা এজন্য নগরীতে প্রশাসনের মনিটরিং ব্যবস্থা না থাকাকে দায়ী করেছেন। স্থানীয় ডিস্ট্রিবিউটররা সিন্ডিকেট করে এলপি গ্যাসের দাম বাড়ানোর আগ মুহূর্তে কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করছেন।

বরিশালে ১ জানুয়ারি থেকে গ্যাসের দাম বেড়েছে। গত সপ্তাহে এলপি গ্যাস লাফস সিলিন্ডার প্রতি বিক্রি হতো ৮০০ টাকা। এখন যার পাইকারি মূল্য ৯৩০ টাকা। খুচরা বাজারে গ্রাহকরা এখন ৯৮০ টাকা থেকে ১০০০ টাকায় এলপি গ্যাস পাচ্ছেন। প্রতি সিলিন্ডারে ১৩০-১৫০ বেড়েছে বলে তিনি জানিয়েছেন। বেসরকারি এলপি গ্যাস ওমেরা ৮৩০ টাকার স্থলে এখন ৯৫০ টাকায় পাইকারি বিক্রি চলছে। গ্রাহক যা পাচ্ছেন ১০০০ টাকায়। ডিস্ট্রিবিউটর রুবেল বলেন, গত ডিসেম্বরে ৩০ থেকে ৫০ টাকা বেড়েছিল। ডিসেম্বরের শুরুতে সিলিন্ডারপ্রতি গ্যাসের দাম ছিল ৭৫০ থেকে ৭৭০ টাকা। রুবেল বলেন, আন্তর্জাতিক বাজারেই এলপি গ্যাসের দাম বাড়ছে। আর প্রতি শীতেই বাড়ে এবারও বেড়েছে।

এলপি গ্যাস যমুনার (বেসরকারি) ডিস্ট্রিবিউটর নগরীর বিসমিল্লাহ ট্রেডার্সের মালিক শাহিন হোসেন বলেন, গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধিতে তাদের কিছু করার নেই। কোম্পানিগুলো একযোগে দাম বাড়িয়েছে, যার প্রভাবে ১৩০ থেকে ১৫০ টাকা সিলিন্ডারপ্রতি বেড়েছে।

বরিশাল নগরীর নবগ্রাম সড়ক সংলগ্ন রাজ্জাক স্টোর্সের স্বত্বাধিকারী আ. রাজ্জাক বলেন, গ্যাসের দাম ১৫০ টাকা করে বেড়েছে। তিনি এখন সিলিন্ডার প্রতি ৯৮০ টাকা বিক্রি করছেন। রাজ্জাক বলেন, গ্যাসের দাম বৃদ্ধিতে গ্রাহকরা তাদের ওপর ক্ষোভ ঝাড়ছেন। একই ধরনের মন্তব্য করেছেন বটতলার এলপি গ্যাস বিক্রেতা শাহিন।

জানতে চাইলে বরিশাল জেলা মার্কেটিং অফিসার এএসএম হাসান সারোয়ার বলেন, গ্যাসের দাম বাড়ছে নাকি ? তা তো জানা নেই। তিনি বলেন, গ্যাস কোম্পানিগুলো নিয়ন্ত্রণে নেই। এটা হয়তো সবাই একযোগে বাড়িয়ে দিয়েছে। খোঁজ নিয়ে বিষয়টি জানানো যাবে।

জানা গেছে, গ্যাসের দাম বৃদ্ধির আগের দিনই সরবরাহ বন্ধ করে দেয় ডিস্ট্রিবিউটররা। যে কারণে ভোগান্তিতে পড়তে হয় সাধারণ মানুষকে। গ্যাস কোম্পানিগুলোর স্থানীয় ডিস্ট্রিবিউটররা সিন্ডিকেট করে একত্রে এভাবে গ্যাসের দাম বাড়াচ্ছে বলে অভিযোগ করেছে এশাধিক সূত্র। নগরীর ঈশ^রবসু রোডের বাসিন্দা এবিএম মাসুদ করিম বলেন, হুট করে এভাবে গ্যাসের দাস বাড়লে সাধারণ মানুষের ওপর আর্থিক চাপ পড়ে। ১৫০ টাকা এক লাফে বাড়লে তারা কোথায় যাবেন। এভাবে যে বাড়ানো হলো তা প্রশাসন জানে?

এ ব্যপারে বরিশালের নবনিযুক্ত জেলা প্রশাসক জসীম উদ্দীন হায়দার বলেন, এলপি গ্যাসের দাম বৃদ্ধির বিষয়টি খতিয়ে দেখছেন। কেন বাড়ছে তা যাচাই বাছাই করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ###

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

Back to top button