বরিশাল জেলার সংবাদ

বকেয়া বেতনের দাবিতে শ্রমিকদের অবস্থান কর্মসূচি

নিজস্ব প্রতিবেদক : ৮ মাসের বকেয়া বেতন প্রদান এবং মিল চালুর দাবিতে বরিশালের সোনারগাঁও টেক্সটাইল মিলের শ্রমিক-কর্মচারীরা অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে।

আজ মঙ্গলবার সকাল ১১টা থেকে বেলা ১২টা পর্যন্ত নগরীর রূপাতলী এলাকায় সোনারগাঁও টেক্সটাইল মিলের প্রধান ফটকের সামনে অবস্থান নিয়ে এই কর্মসূচি পালন করে। এ সময় যেকোনো অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি মোকাবেলায় সেখানে সতর্ক অবস্থানে ছিল পুলিশ।
আন্দোলনরত শ্রমিক-কর্মচারীরা বলেন, কর্তৃপক্ষ হয় কারখানা চালু করুক, না হয় স্থায়ীভাবে বন্ধ করে দিক। কিন্তু শ্রমিক-কর্মচারীদের বকেয়া পাওনা অবশ্যই পরিশোধ করতে হবে। নিয়মিত বেতন-ভাতা না পাওয়ায় সোনারগাঁও টেক্সটাইলের শ্রমিক-কর্মচারীরা পরিবার-পরিজন নিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছে বলে অভিযোগ করেন তারা।

অবিলম্বে শ্রমিক-কর্মচারীদের বকেয়া বেতন-ভাতা পরিশোধ করা না হলে কঠোর আন্দোলনের হুশিয়ারি দেন সোনারগাঁও টেক্সটাইল মিল শ্রমিক-কর্মচারী সংগ্রাম পরিষদের সাধারণ সম্পাদক নুরুল হক।

সোনারগাঁও টেক্সটাইল মিল শ্রমিক-কর্মচারী সংগ্রাম পরিষদের সভাপতি বেল্লাল গাজীর সভাপতিত্বে অবস্থান কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন সাধারণ সম্পাদক নুরুল হক, একাত্মতা প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন জেলা বাসদ আহ্বায়ক ইমরান হাবিব রুম্মান এবং সদস্য সচিব ডা. মনিষা চক্রবর্তী সহ অন্যান্যরা।

শ্রমিকদের অবস্থান কর্মসূচী চলাকালে যে কোন অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি মোকাবেলায় সেখানে বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা ছিল বলে জানিয়েছেন কোতোয়ালী মডেল থানার ওসি মো. নুরুল ইসলাম।

উল্লেখ্য, করোনাকালের শুরুতে শ্রমিক-কর্মচারীদের বকেয়া বেতন-ভাতা পরিশোধ না করে এবং কোন পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই সোনারগাঁও টেক্সটাইল মিল বন্ধ ঘোষণা করে কর্তৃপক্ষ। এরপর বকেয়া বেতন ভাতা পরিশোধ সহ মিল চালুর দাবিতে শ্রমিক-কর্মচারীরা বিভিন্ন সময় মানববন্ধন, বিক্ষোভ মিছিল-সমাবেশ এবং মহাসড়ক অবরোধ করে। প্রতিবার মালিক কর্তৃপক্ষ শ্রমিকদের বকেয়া বেতন ভাতা পরিশোধের প্রতিশ্রুতি দিলেও আজ পর্যন্ত তাদের বকেয়া বেতন পরিশোধ হয়নি। এ কারণে মানবেতর জীবন যাপন করছে সোনারগাঁও টেক্সটাইলের ৭০০ শ্রমিক ও তাদের পরিবারের সদস্যরা।

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

Back to top button