বরিশাল জেলার সংবাদ

শহীদ আবদুর রব সেরনিয়াবাত একজন ভালো রাজনীতিবিদ ছিলেন

বরিশাল প্রেসক্লাবের আলোচনা সভায় বক্তারা

নিজস্ব প্রতিবেদক : জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভগ্নিপতি , তৎকালীন পানি, সেচ এবং বন্যা নিয়ন্ত্রণ মন্ত্রী, পার্বত্য শান্তি চুক্তি বাস্তবায়ন ও নিরিক্ষণ কমিটির আহবায়ক মন্ত্রী আবুল হাসানাত আবদুল্লাহর পিতা এবং বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ও বরিশাল মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহর দাদা শহীদ আবদুর রব সেরনিয়াবাতের জন্ম শতবার্ষিকী উপলক্ষ্যে শহীদ আবদুর রব সেরনিয়াবাত বরিশাল প্রেসক্লাবের উদ্যোগে দিনভর বিস্তারিত কর্মসূচি পালিত হয়েছে।

রবিবার সকালে ক্লাবের উদ্যোগে বরিশাল অশ্বিনী কুমার হল চত্বরে রক্ষিত আবদুর রব সেরনিয়াবাতের প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ অর্পন করা হয়। বিকেলে ক্লাব মিলনায়তনে এ উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা, কেক কাটা ও দোয়া মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়।

ক্লাব সভাপতি মু.ইসমাইল হোসেন নেগাবানের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক কাজী মিরাজ মাহমুদের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় অন্যান্যের মধ্যে ক্লাবের সাবেক সভাপতি অ্যাড. মানবেন্দ্র বটব্যাল, সিনিয়র সাংবাদিক অ্যাড. তপন চক্রবতী, অ্যাড. নজরুল ইসলাম চুন্নু ও অধ্যাপক তপংকর চক্রবর্তী আবদুর রব সেরনিয়াবাতের কর্মময় জীবনের নানা দিক নিয়ে আলোচনা করেন।

এসময় বক্তারা বলেন, শিখর থেকে শেখড়ে যদি বলা হয় তাহলে তাঁকেই (রব সেরনিয়াবাত) বলা যায়। আবদুর রব সেরনিয়াবাত উদার মনের একজন মানুষ ছিলেন। তিনি আইন পেশা ও সাংবাদিকতার পাশাপাশি একজন ভালো রাজনীতিবিদও ছিলেন। বরিশাল প্রেসক্লাবের সদস্যরা তাঁর উত্তরসূরি হিসেবে গর্ববোধ করেন।

রব সেরনিয়াবাত তাঁর জীবদ্দশায় সাধারণ মানুষের জন্য যেমন রাজনীতি করেছেন তেমনি বাহান্নোর ভাষা আন্দোলনে প্রত্যক্ষভাবে জড়িত ছিলেন। বক্তারা বলেন, আবদুর রব সেরনিয়াবাত ভূমিহীনদের অধিকার রক্ষা ও কৃষকদের স্বার্থ রক্ষায় আইন প্রনয়ন করেছিলেন।

তাঁর মৃত্যুতে অপূরনীয় ক্ষতি হয়েছে উল্লেখ করে আলোচকরা বলেন, রব সেরনিয়াবাত ভূমি ব্যব¯’াপনার পরিবর্তনের জন্য যে কাজ শুরু করেছিলেন তাঁর মৃত্যুর কারনে তা বাধাগ্রস্ত হয়েছে। তিনি আরো কিছুদিন বেঁচে থাকলে খেটে খাওয়া মানুষদের অনেক উপকার হতো। বক্তারা আবদুর রব সেরনিয়াবাতের চেতনায় উদ্ধুদ্ধ হয়ে সকলকে আগামীতে এক সাথে কাজ করার আহবান জানান।

আলোচনা সভায় অন্যান্যের মধ্যে ক্লাবের সিনিয়র সদস্য এম.এম. আমজাদ হোসাইন, গোপাল সরকার, মাহমুদ হোসেন চৌধুরী, মুক্তিযোদ্ধা এনায়েত হোসেন চৌধুরী, জাকির হোসেন, জিয়াউদ্দিন বাবু, বেলায়েত বাবলু, এম. মিরাজ হোসাইন, নাসির উদ্দিন, রাইসুল ইসলাম অভি, সাগর বৈদ্য, সাঈদ পাš’, ফারুক লিটু, ডা. কবিউল করিম. রেদোয়ান রানা, জুয়েল রানা, রুবেল পারভেজ প্রমুখ উপ¯ি’ত ছিলেন।

সভা শেষে জন্ম শত বার্ষিকীর কেক কাটা হয়। সর্বশেষ অনুষ্ঠিত দোয়া মোনাজাতে আবদুর রব সেরনিয়াবাত ও বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহর মাতা সাহান আরা বেগমের আত্মার মাগফিরাত কামনা করা হয়। এছাড়া পার্বত্য শান্তি চুক্তি বাস্তবায়ন ও নিরিক্ষণ কমিটির আহবায়ক মন্ত্রী আবুল হাসানাত আবদুল্লাহর সুস্বা¯’্য, দীর্ঘায়ূ কামনা এবং মেয়র সাদিক আবদুল্লাহর উত্তরাত্তোর সমৃদ্ধি ও সাফল্য কামনা করা হয়।

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

Back to top button