বরিশাল বিভাগের সংবাদ

আলোচিত রিফাত হত্যা মামলার রায় বুধবার

সঞ্জীব দাস, বরগুনা : বরগুনার আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যা মামলার রায় হবে আগামীকাল (৩০ সেপ্টেম্বর)। বরগুনা জেলা ও দায়রা জজ মো. আছাদুজ্জামান মামলার রায় ঘোষনা করবেন। দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি দাবী করেছেন রিফাতের পরিবার ও স্থানীয়রা। এদিকে  ন্যায্য বিচার প্রত্যাশা করেছেন মিন্নির বাবা।
বুধবার এ মামলার বয়স্ক ১০ জন আসামীর বিরুদ্ধে রায় ঘোষনা করা হবে। মামলার আসামীরা হচ্ছেন, রাকিবুল হাসান ওরফে রিফাত ফরাজী (২৩), আল কাইয়ুম ওরফে রাব্বি আকন (২১), মোহাইমিনুল ইসলাম সিফাত (১৯), রেজোয়ান আলী খান হৃদয় ওরফে টিকটক হৃদয় (২২), মো: হাসান (১৯), মো: মুসা (২২), আয়শা সিদ্দিকা মিন্নি (১৯), রাফিউল ইসলাম রাব্বি (২০), মো: সাগর (১৯) ও কামরুল হাসান সায়মুন (২১)।
গত বছরের ১ সেপ্টেম্বর রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় রিফাতের স্ত্রী মিন্নিসহ ২৪ জনের বিরুদ্ধে বরগুনার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে দুই ভাগে বিভক্ত অভিযোগপত্র (চার্জশিট) দেয় পুলিশ। চলতি বছরের ১ জানুয়ারি রিফাত হত্যা মামলার প্রাপ্তবয়স্ক ১০ আসামির বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করেন বরগুনার জেলা ও দায়রা জজ আদালত। এরপর ৭৬ জন সাক্ষির সাক্ষ্য গ্রহন, রাষ্ট্রপক্ষ ও আসামী পক্ষের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে রায়ের তারিখ নির্ধারিত হয়। করোনা মহামারির মধ্যে কোট বন্ধ থাকার পরেও অতি অল্প সময়ে বিচারিক কার্যক্রম শেষ করে রায়ের দিন নির্ধারিত হওয়ায় সন্তোষ প্রকাশ ও দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি দাবী করেছেন রিফাতের বাবা দুলাল শরীফ।
আইনের প্রতি শতভাগ আস্থা জানিয়ে রিফাত শরীফ হত্যা মামলার সাক্ষি থেকে আসামী হওয়া আয়শা সিদ্দিকা মিন্নির বাবা মোজাম্মেল হোসেন কিশোরও ন্যায্য বিচার প্রত্যাশা করছেন। তার দাবি মিন্নিকে এই মামলায় ষড়যন্ত্রমূলকভাবে ফাঁসানো হয়েছে।
রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী পাবলিক প্রসিকিউটর এডভোকেট ভুবন চন্দ্র হাওলাদার জানিয়েছেন, তারা রিফাত শরীফ হত্যা মামলার প্রাপ্তবয়স্ক ১০ আসামীর বিরুদ্ধে সাক্ষি, নানা তথ্য ও উপাত্ত দিয়ে আদালতকে সন্তুষ্ট পেরেছেন। তার প্রত্যাশা আসামীদের সর্বোচ্চ শাস্তি হবে।
মিন্নির পক্ষের আেইনজীবী মাহবুবুল বারী আসলাম জানিয়েছেন, তারা যে যুক্তিতর্ক উপস্থাপন করেছেন-তাতে মিন্নি বেকসুর খালাস পাবেন।
বরগুনার আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় ১০ আসামীর রায়ের দিন নির্ধারিত হলেও ১৪ শিশু আসামীর বিচারিক কার্যক্রম বরগুনার শিশু আদালতে চলমান রয়েছে।
শাহ নেওয়াজ রিফাতকে (রিফাত শরীফ) ২০১৯ সালের ২৬ জুন বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে নয়নবন্ড ও তার সহযোগী সন্ত্রাসীরা প্রকাশ্যে রামদা দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে। এরপর বীরদর্পে অস্ত্র উঁচিয়ে এলাকা ত্যাগ করেন তারা। গুরুতর আহত রিফাত বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ওইদিনই মারা যান তিনি।

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

আরও দেখুন...
Close
Back to top button